মেনু নির্বাচন করুন
ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র

ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে স্বাগত। এই অফিসটির অবস্থান মাদাররশা ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের পোষ্ট অফিস সংলগ্ন বাগানে। এই সেবা কেন্দ্রটি উক্ত ইউনিয়নের জনসাধারণের চিকিৎসা সেবা প্রদানের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু। অফিস ভবনটি দ্বিতল। উক্ত ভবনে নিয়মিত চিকিৎসকগন অবস্থান করে নিয়মিত জনসাধারনকে সেবা প্রদান করে থাকেণ। সেবা নিন ভাল থাকুন।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

কি সেবা কিভাবে পাবেন

স্বাস্থ্য কর্মসূচী

ইপিআই কর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীর নামঃ সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচী

· কর্মসূচী বাসত্মবায়নকারীঃ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা এবং তাহার আওতাধীন সকল স্বাস্থ্য কর্মী।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারীঃ স্বাস্থ্য ও পঃ কঃ মন্ত্রণালয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ।

-লক্ষ্য ও পদ্ধতিঃ শিশুদের ০৮টি রোগের বিরম্নদ্ধে প্রতিরোধ টিকা প্রদান ও ভিটামিন এ ক্যাপসুল এর মাধ্যমে রাতকানা রোগ  ও অপুষ্টি প্রতিরোধ।  মায়েদের কে টিটি টিকার মাধ্যমে মা এবং নবজাতক শিশুর টিটেনাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা। মায়েদের-কে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাধ্যমে মায়েদের এবং নবজাতক শিশুদের ভিটামিন এ এর ঘাটতি পুরন। মূল লক্ষ্য হচ্ছে, শিশু ভোগামিত্ম এবং মৃত্যুহার কমানো।
· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠীঃ ১৫-৪৯ বৎসরের সকল মহিলা এবং ০- ৬০মাস  বয়সী সকল শিশু।

ই ও সি কর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীর নাম ঃ  প্রসুতি সেবা

· কর্মসূচী বাস্তবায়নকারী ঃ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা  এবং ই ও সি অমত্মর্ভুক্ত হাসপাতালসমূহের ডাক্তার ও নার্স।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারী - স্বাস্থ্য ও পঃ কঃ মন্ত্রণালয়, ইউনিসেফ ।

· লক্ষ্য ও পদ্ধতি - নিরাপদ মাতৃত্ব ,বিপদ মুক্ত ডেলিভারী এবং শিশু ও মাতৃ মৃত্যু হার কমানো।

· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠী - সকল গর্ভবতী মা।

এ আর আই কর্মসূচীঃ

· কর্মসূচীর নাম - এ আর আই।

· কর্মসূচী বাস্তবায়নকারী ঃ তত্বাবধায়ক/ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তাসহ প্রতিষ্ঠানের সকল ডাক্তার,

চিকিৎসা সহকারী, ফার্মাসিষ্ট, নার্স ।

· অর্থায়ন ও অন্যান্য সহায়তাকারী - স্বাস্থ্য ও পঃ কঃ মন্ত্রণালয়, ইউনিসেফ ।

· লক্ষ্যও পদ্ধতি - শিশুদের নিউমোনিয়া এবং শ্বাসনালী প্রদাহ জনিত রোগের চিকিৎসা এবং প্রকোপ কমানো।

· আওতাভুক্ত সুবিধাভোগী জনগোষ্ঠী ঃ সকল শিশু।

উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আগত নারী-পুরম্নষ, বৃদ্ধ-যুব-শিশু সকলকে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করা হয়।

* ডায়রিয়া রোগীদের জন্য ওআরএস সরবরাহ করা হয়।

* হাসপাতালে আগত প্রসূতি রোগীদের এন্টিনেটাল চেকআপসহ প্রয়োজনীয় উপদেশ দেয়া হয় এবং

আয়রন ট্যাবলেট সরবরাহ করা হয়।

* জাতীয় যক্ষ্মা ও কুষ্ঠ নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের আওতায় যক্ষ্মা রোগীদের কফ পরীÿার জন্য কফ কালেকশন

করা হয় এবং যক্ষ্মা কুষ্ঠ রোগীদের বিনামূল্যে ঔষধ সরবরাহ কর হয়।

* শিশু ও মহিলাদের ইপিআই কার্যক্রমের আওতায় পতিষেধক টিকা দেয়া হয়

* উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আগত রোগীদের স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও প্রজনন স্বাস্থ্য শিÿা দেয়া হয়

*উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আগত কিশোর-কিশোরী ও সÿম দম্পতিদের মধ্যে প্রজনন স্বাস্থ্য ও পরিবার

পরিকল্পনা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

* প্রয়োজনে রোগীকে উপজেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়

* আগত রোগী ও তাঁদের আত্মীয়-স্বজনগণ স্বাস্থ্য সেবা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও উপদেশের জন্য

সংশ্লিট চিকিৎসকগণের সাথে সহজেই যোগাযোগ করতে পারেন।

* উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় সংখ্যক নোটিশ বোর্ড সবার দৃষ্টিগোচর হয় এমন জায়গায় স্থাপিত আছে।

নোটিশ বোর্ডে প্রয়োজনীয় তথ্য লিপিবদ্ধ আছে

* সরবরাহ সাপেক্ষে ঔষধ সমূহ সেবাকেন্দ্র হতে বিনা মূল্যে প্রদান করা হয়। তবে চিকিৎসার প্রয়োজনে

কোন কোন ঔষধ কেন্দ্রের বাহির হতে সেবা গ্রহীতাকে ক্রয় করতে হতে পারে।

* বোর্ডে মজুদ ঔষধের তালিকা, প্রাদনকৃত সেবাসমূহের তালিকা, সেবা প্রদানকারী চিকিৎসকের তালিকা

টানানো আছে।

* সেবা গ্রহীতার কর্তৃব্য-

সেবা প্রদানকারীগণ সেবা গ্রহীতার নিকট হতে সৌজন্য মূলক আচরণ প্রাপ্তির অধিকার রাখে

এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।এই মুহুর্তে কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প নেই। তবে প্রকল্প নেয়া যেতে পারে। কারন, প্রকল্পের মাধ্যমে খুবই দ্রুত কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছান যায়।

ছবি নাম মোবাইল
নন 0

ছবি নাম মোবাইল
নন 0

ছবি নাম মোবাইল

অত্র অফিসের নিজস্ব কোন প্রকল্প নেই। তবে বিভিন্ন সংস্থার প্রকল্প গুলো এই অফিসের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হয়ে থাকে। প্রকল্প সমূহ যথাক্রমে :-

১। ব্র্যাক পরিচালিত যক্ষা প্রতিরোধ কর্মসূচী।

২। এনভেঞ্জার হেলথ ও মায়ের হাসি মাঠ সেবা কার্যক্রম।

৩। মাসিক টিকাদান এবং ইপিআই কর্মসূচী।

মার্দাশা, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

মার্দাশা, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম।

 

মার্দাশা, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম।

 

মার্দাশা, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম।

 

মার্দাশা, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম।


Share with :